বাংলাদেশের একটি তৈরি-পোশাক কারখানা

বাংলাদেশের একটি তৈরি-পোশাক কারখানা

আগামী ৪ বছরের মাঝেই বাংলাদেশে চীনকে পেছনে ফেলে বিশ্বের একনম্বর তুুলা আমদানিকারক দেশে পরিণত হতে যাচ্ছে — এমনটাই জানিয়েছে অস্ট্রেলিয়ান ট্রেড এন্ড ইনভেস্টমেন্ট কমিশন (অসট্রেড)। সম্প্রতি ফাইবারটুফ্যাশন অসট্রেডকে উদ্বৃত করে এমনটা জানিয়েছে।

বর্তমানে মাত্র ১ লক্ষ বেইল তুলা দেশে উৎপন্ন হয়। আর বাকি ৬০ লক্ষ বেইল তুলা বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আমদানি করা হয়। অসট্রেডের নতুন দিল্লী অফিসের প্রধান টিম মার্টিন জানান, বাংলাদেশের বর্তমান তুলা চাহিদা আগামি ৪ বছরে দ্বিগুণ হবে এবং এর মাধ্যমে তারা চীনকে ছাড়িয়ে বিশ্বের ১ নম্বর তুলা আমদানিকারক দেশে পরিণত হবে। টিম অসট্রেডের বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার।

এই খবরের অন্যদিক হলো, অস্ট্রেলিয়ার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ রপ্তানি বাজার হলো বাংলাদেশে। বিশেষ করে বাংলাদেশের আমাদিনকৃত তুলার একটি বড় অংশ আশে অস্ট্রেলিয়া থেকে। টিম জানান, অস্ট্রেলিয়া বিশ্বের ১ নম্বর তুলা রপ্তানিকারক দেশ এবং নির্ভরযোগ্য সরবরাহকারী হিসেবে দেশটি সারা বিশ্বে সুনাম অর্জন করেছে। বিশেষত অস্ট্রেলিয়ার তুলায় কোন বিষাক্ত পদার্থ নেই বললেই চলে।

প্রসঙ্গত বাংলাদেশ প্রতিবছর অস্ট্রেলিয়ায় ৬৩৮ মিলিয়ন ডলার সমমূল্যের পণ্য রপ্তানি করে। এর বিপরীতে আমদানির পরিমাণ ৭৮৭ মিলিয় ডলার।